জীন বলছে চা খাওয়ার জন্য আগে ডাকলেন না কেন?

  কোন মন্তব্য নেই

ইসলামিক বিশ্বাস অনুযায়ী জীন জাতি মানবজাতির মত সৃষ্টিকর্তার তৈরি আরেকটি জাতি।  জীন তৈরি মূলত ধোঁয়াহীন আগুন দ্বারা।  সবচেয়ে বেশি পরিচিত দুইটি জীন হল ইসলাম ধর্মে জাকে শয়তান হিসেবে চিহ্নিত করা হয়, তথা ইবলিস।  আরেকটি জনপ্রিয় জীন হচ্ছে আরব্য জনপ্রিয় গল্প আলাদীনের জীন, যদিও সেই জীন বাস্তবে ছিল না,কাল্পনিক। 

এই দুইটি জীন স্বভাবগত দিক দিয়ে ব্যাতিক্রম। তবে আলাদীনের গল্পে চেরাগের সেই জিনটিকে, জীন সম্পর্কে ইসলামের ব্যাখ্যার সাথে মিলিয়ে খুব ভালোভাবে চিত্রায়িত করা হয়েছিল।  সেই জীন মুহূর্তেই এক স্থান থেকে অন্য স্থানে জেতে পারত। মুহূর্তেই সোনা- দানা, মনি- মুক্তা জহরত নিয়ে আসত, তদুপরি যেকোনো আকৃতিতে আসতে পারতো। 

ছোট্ট একটা ঘটনা...

একজন মহিলা ছিল, তার স্বামী সামরিক বাহিনীতে চাকরি করত তাই গ্রামে থাকতোনা বেশি।  মহিলাটি খুব একা একা থাকতো বাসায়।  হঠাৎ তার একজন বন্ধু জুটল। সেই লোকটি তার বাসার প্রতিদিন সন্ধ্যায় উঠোনের দেয়ালে পিঠ মুখ করে বসে থাকত।  কথার উত্তরে অল্প অল্প তাকাতো, তবে বেশি না।  একদিন মহিলাটি সেই বন্ধুকে তার বাসায় চা খাওয়ার জন্য ডাকলো।  তো সেই লোকটি দেয়াল থেকে না নেমে ঘুরে বসে সরাসরি তার পা লম্বা করে দেয়াল থেকে না নেমে তার ঘরের দরজায় রাখল...তারপর বলল চা খাওয়ার জন্য আমাকে আগে ডাকলেন না কেনো?     

কোন মন্তব্য নেই :

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন