৪২৯৯ টাকায় সুপার বাজেট স্মার্টফোন প্রিমো ই১১ঃ ৪জি কানেক্টিভিটি, ১ জিবি র‍্যাম, কোয়াড কোর প্রসেসর

  কোন মন্তব্য নেই

বর্তমান যুগে সময়ের সাথে তাল মেলাতে সব বয়সের মানুষেরই স্মার্টফোন ছাড়া চলা অনেকটা কষ্টসাধ্য। যেমন এই মহামারীর সময়ে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম অনলাইন ভিত্তিক হয়ে গিয়েছে, সেক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রমের সাথে যুক্ত হতে ন্যূনতম একটি স্মার্ট ফোনের সহযোগিতা নিতেই হবে।

সময়ের প্রয়োজনে এখন একটি স্মার্টফোনের গুরুত্ব প্রচুর, তবে সবচাইতে বড় সমস্যা স্মার্টফোনের বাজেট। বাজেট স্বল্পতার কারনে আমরা আমাদের প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও স্মার্টফোনের মত প্রয়োজনীয় এই ডিভাইসটি কিনতে পারি না। তো এসবের চিন্তা করে দেশীয় ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন বরারবই মানুষের মাঝে সাশ্রয়ী দামে দারুন সব বাজেট স্মার্টফোন নিয়ে আসছে। তার ভেতর ওয়ালটনের প্রিমো ই সিরিজটি অনেক বেশি উল্লেখযোগ্য।

সম্প্রতি দেশের বাজেট গ্রাহকদের কথা চিন্তা করে ওয়ালটন তাদের প্রিমো ই সিরিজের অধীনে নিয়ে এসেছে নতুন প্রিমো ই১১ স্মার্টফোন । ই সিরিজের নতুন এই ‘প্রিমো ই১১’ এর দাম ধরা হয়েছে ৪২৯৯ টাকা।

একনজরে প্রিমো ই১১

  • এন্ড্রয়েড পাই ৯ (গো সংস্করন)
  • ৪ জি কানেক্টিভিটি, ভো-এলটিই সাপোর্ট
  • ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াডকোর প্রসেসর
  • ১ জিবি র‍্যাম, ১৬ জিবি রম
  • ৫ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা
  • ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ২০০০ এমএএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি

স্মার্টফোনটির অন্যতম একটি ফিচারিং সুবিধা হচ্ছে স্মার্টফোনটির ৪ জি কানেক্টিভিটি। গ্রামীনফোন সম্প্রতি ৪জি ভিত্তিক মোবাইল কলিং এ ভো-এলটিই সুবিধা দেশব্যাপী চালু করেছে, স্মার্টফোনটি দিয়ে সেই ভো-এলটিই কলিং সুবিধাও উপভোগ করা যাবে। আর ভো-এলটিই সুবিধা থাকার ফলে, স্মার্টফোনটি ৪জি নেটওয়ার্ক এর ভেতর থাকলে একদম হাই-ডেফিনিশন অডিও কোয়ালিটি উপভোগ করা যাবে।

পাশাপাশি বাসার বয়স্ক মানুষদের জন্যও অনেক সময় একটি সাধারণ স্মার্টফোনের প্রয়োজন হয়। আর তারা প্রিমো ই১১ এর মত দারুন বাজেট স্মার্টফোনটি দিয়ে খুব সহজে দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে ভিডিও কলিং এর মাধ্যমে আত্মীয়-স্বজন, সন্তানদের সাথে তাদের যোগাযোগএর কাজটি করতে পারবেন। তাছাড়া এই মহামারীর সময়ে যেসকল শিক্ষার্থীদের নিরবিচ্ছিন্ন অনলাইন ক্লাসের জন্য একটি ভালো নেটওয়ার্ক কানেক্টিভিটি সম্পন্ন ফোন দরকার; তাদের জন্যও এই প্রিমো ই১১ স্মার্টফোনটি একটি দারুন পছন্দ হতে পারে।

ডিজাইন এর দিক দিয়েও এই প্রিমো ই১১ স্মার্টফোনকে খারাপ বলা যাবেনা। স্মার্টফোনটি পাবেন দারুন গ্লসি প্লাস্টিক ফিনিস বডির সাথে। আর স্মার্টফোনটি ছোটোখাট হওয়ার ফলে হাতে খুবি সহজেই গ্রিপ হবে। প্রিমো ই১১ স্মার্টফোনটি বাজারে পাওয়া যাবে তিনটি দারুন কালারে, আর এগুলো হল: Cyan. Electric Blue এবং Jet-Black।

আর বাজেট স্মার্টফোন হলেও এর ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে এর জন্য ইউজার এক্সপেরিয়েন্স এর দিক দিয়ে ব্যবহারকারীর কোন সমস্যা হবেনা। এই বাজেটে ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে থাকাটাও স্মাটফোনটির জন্য অন্যতম একটি প্লাস পয়েন্ট। আর ‘এফডাব্লিউভিজিএ’ ডিসপ্লে হওয়ার ফলে স্মার্টফোনটিরডিসপ্লে যথেষ্ট ব্রাইট।

স্মার্টফোনটিতে দেয়া হয়েছে খুবই বেসিক হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশন। আর দাম হিসেবে প্রিমো ই১১এ এর থেকে বেশি কিছু আশা করা ঠিকও হবেনা। স্মার্টফোনটিতে থাকছে ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াডকোর প্রসেসর।

এতে থাকছে ১ জিবি র‍্যাম এবং সিস্টেম মেমোরি থাকছে ১৬ জিবি। যার ফলে ভিডিও কনফারেন্সিং এর জন্য জুম কিংবা মেসেঞ্জারের মতন অ্যাপলিকেশন স্মার্টফোনটিতে অনায়াসে চলবে।

স্মার্টফোনটির সামনে এবং পিছনে উভয়পাশে পাচ্ছেন বিএসআই সেন্সর যুক্ত ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। আর বিএসআই সেন্সর হওয়ার কারনে স্মার্টফোনটি দিয়ে লোলাইটে খুবই ভালো পারফর্মেন্স পাবেন। আর ফ্রন্টে ৫ মেগাপিক্সেল হওয়ার কারনে সেলফিও হবে দারুন। সুতরাং দাম হিসেবে স্মার্টফোনটির ক্যামেরাও আপনাকে হতাশ করবে না।

আর ওয়ালটনের যেকোনো স্মার্টফোনের সাথেই আপনি পাবেন ১ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি। সুতরাং আপনার বাজেট যদি ৪০০০ টাকার আশেপাশে হয় তবে  প্রিমো ই১১ স্মার্টফোনটি কিনতে পারেন । আর স্মার্টফোনটি দেখতে চলে যেতে পারেন আপনার নিকটস্থ যেকোনো ওয়ালটন প্লাজায়।

কোন মন্তব্য নেই :

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন